চবিতে গণিত বিভাগের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

চবির সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানের অালোচনা সভা। ছবি: কিশোর বাতায়ন সংবাদ


Photo Not Found Md.Ashraf Uddin Khan, Jahangirpur T. Amin Govt. Pilot Hight School., NETROKONA, ১৭ নভেম্বর, ২০১৮


চবির সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানের অালোচনা সভা। ছবি: ইত্তেফাক

প্রাক্তন-বর্তমান শিক্ষার্থীদের মিলনমেলার মধ্যদিয়ে পালিত হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় গণিত বিভাগের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জারুলতলায় এ অনুষ্ঠান উদ্বোধক করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, গণিত বিজ্ঞানের একটি মৌলিক বিষয় এবং আধুনিক সভ্যতা বিকাশে গণিতের অসামান্য অবদান অনস্বীকার্য। এছাড়াও দেশের অন্যতম উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও উচ্চ শিক্ষা-গবেষণায় অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করায় বাংলাদেশের শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয় হিসাবে অবস্থান করে নিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়। এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের ও গৌরবের বিষয়।

বিভিন্ন সূচক আলোকপাত করে তিনি আরো বলেন, দেশের সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি দেশের বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের শিক্ষক-গবেষকদের আধুনিক বিজ্ঞানমনষ্ক মানবসম্পদ উতপাদনে নিরন্তর প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকতে হবে। এর জন্য সবাই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে এবং এক হয়ে কাজ করতে হবে।

বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষক গণিত ও ভৌত বিজ্ঞানী ও চবি গণিত ও ভৌত বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত প্রফেসর ড. জামাল নজরুল ইসলাম এবং এ বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষক ও সাবেক উপাচার্য প্রয়াত প্রফেসর মোহাম্মদ ফজলী হোসেনকে স্মরণ করে চবি উপাচার্য বলেন, এ জ্ঞানতাপসবৃন্দ চবি গণিত বিভাগকে জ্ঞান-বিজ্ঞান চর্চার তীর্থ কেন্দ্রে রূপান্তর করার অভিপ্রায় নিয়ে নিরলস কাজ করে গেছেন। এছাড়াও গণিত বিভাগ এ বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস-ঐতিহ্যের অন্যতম অংশীদার। এ বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা দেশে-বিদেশে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিশেষ মর্যাদায় অধিষ্ঠিত থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তিকে করেছে সমুজ্জ্বল।

সুবর্ণজয়ন্তীর দু’দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের প্রথম দিনে ছিল-বর্ণাঢ্য র‌্যালি, উদ্বোধনী অনুষ্ঠান, সম্মাননা প্রদান, পরিচিতি ও স্মৃতি কথন এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ২য় দিন শনিবার চট্টগ্রাম লাভ লেইনের স্মরণিকা কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিতব্য কর্মসূচিতে থাকবে-স্মৃতি কথন, ব্যাচ ভিত্তিক ফটোসেশন, সমাপণী সেশন, র‌্যাফেল ড্র ও পুরষ্কার বিতরণ এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

চবি গণিত বিভাগের সভাপতি ও সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক প্রফেসর ড. গনেশ চন্দ্র রায়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ সফিউল আলম, চবি জে. এন. ইসলাম গণিত ও ভৌত বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রের ইউজিসি প্রফেসর ড. মো. আবুল মনসুর চৌধুরীসহ প্রমুখ।







মন্তব্য ( ১ )

মন্তব্য করতে হলে আগে লগ ইন করুন


Md hasan,১৮ নভেম্বর, ২০১৮

Valo


সর্বশেষ সংবাদ

আরও

চবির সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানের অালোচনা সভা। ছবি: কিশোর বাতায়ন সংবাদ

চবিতে গণিত বিভাগের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

User Photo Md.Ashraf Uddin Khan, Jahangirpur T. Amin Govt. Pilot Hight School., NETROKONA,

১৭ নভেম্বর, ২০১৮


চবির সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানের অালোচনা সভা। ছবি: ইত্তেফাক

প্রাক্তন-বর্তমান শিক্ষার্থীদের মিলনমেলার মধ্যদিয়ে পালিত হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় গণিত বিভাগের সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন করা হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জারুলতলায় এ অনুষ্ঠান উদ্বোধক করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, গণিত বিজ্ঞানের একটি মৌলিক বিষয় এবং আধুনিক সভ্যতা বিকাশে গণিতের অসামান্য অবদান অনস্বীকার্য। এছাড়াও দেশের অন্যতম উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও উচ্চ শিক্ষা-গবেষণায় অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করায় বাংলাদেশের শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয় হিসাবে অবস্থান করে নিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়। এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত আনন্দের ও গৌরবের বিষয়।

বিভিন্ন সূচক আলোকপাত করে তিনি আরো বলেন, দেশের সাধারণ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে সরকারের পাশাপাশি দেশের বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের শিক্ষক-গবেষকদের আধুনিক বিজ্ঞানমনষ্ক মানবসম্পদ উতপাদনে নিরন্তর প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকতে হবে। এর জন্য সবাই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে এবং এক হয়ে কাজ করতে হবে।

বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষক গণিত ও ভৌত বিজ্ঞানী ও চবি গণিত ও ভৌত বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত প্রফেসর ড. জামাল নজরুল ইসলাম এবং এ বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষক ও সাবেক উপাচার্য প্রয়াত প্রফেসর মোহাম্মদ ফজলী হোসেনকে স্মরণ করে চবি উপাচার্য বলেন, এ জ্ঞানতাপসবৃন্দ চবি গণিত বিভাগকে জ্ঞান-বিজ্ঞান চর্চার তীর্থ কেন্দ্রে রূপান্তর করার অভিপ্রায় নিয়ে নিরলস কাজ করে গেছেন। এছাড়াও গণিত বিভাগ এ বিশ্ববিদ্যালয়ের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস-ঐতিহ্যের অন্যতম অংশীদার। এ বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা দেশে-বিদেশে সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বিশেষ মর্যাদায় অধিষ্ঠিত থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তিকে করেছে সমুজ্জ্বল।

সুবর্ণজয়ন্তীর দু’দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের প্রথম দিনে ছিল-বর্ণাঢ্য র‌্যালি, উদ্বোধনী অনুষ্ঠান, সম্মাননা প্রদান, পরিচিতি ও স্মৃতি কথন এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ২য় দিন শনিবার চট্টগ্রাম লাভ লেইনের স্মরণিকা কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিতব্য কর্মসূচিতে থাকবে-স্মৃতি কথন, ব্যাচ ভিত্তিক ফটোসেশন, সমাপণী সেশন, র‌্যাফেল ড্র ও পুরষ্কার বিতরণ এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

চবি গণিত বিভাগের সভাপতি ও সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক প্রফেসর ড. গনেশ চন্দ্র রায়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ সফিউল আলম, চবি জে. এন. ইসলাম গণিত ও ভৌত বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রের ইউজিসি প্রফেসর ড. মো. আবুল মনসুর চৌধুরীসহ প্রমুখ।

মন্তব্য ( ১ )

মন্তব্য করতে হলে আগে লগ ইন করুন


Md hasan,১৮ নভেম্বর, ২০১৮

Valo