পাঁচটি সহ-শিক্ষা এবং শিক্ষামূলক কার্যক্রম

অপূর্ব দীপ্ত ভৌমিক, হাজী মুহাম্মদ মহসিন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, CHATTOGRAM, ২৬ মার্চ, ২০১৯

পাঁচটি সহ-শিক্ষা এবং শিক্ষামূলক কার্যক্রমের লোগো



২১ শতাব্দীর এই যুগে একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি সহ-শিক্ষা এবং শিক্ষামূলক কার্যক্রমকেও কিন্তু ছোটো করে দেখবার উপায় নেই। তাই সকল শিক্ষার্থীর সুবিদার্থে আমি পাঁচটি সহ-শিক্ষা এবং শিক্ষামূলক কার্যক্রম নিয়ে একটি পোস্ট দিলাম।কারো কোনো প্রশ্ন থাকলে "মন্তব্য"-এ লিখতে পারো। আমি যথাসম্মত উত্তর দেবো। বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশিপ সেন্টার(বিওয়াইএলসি): বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশীপ সেন্টার বাংলাদেশের প্রথম নেতৃত্ব শিক্ষাদানকারী প্রতিষ্ঠান। এটি স্থাপিত হয় ২০০৯ সালে।বিওয়াইএলসি চারমাস ব্যাপী নেতৃত্ব প্রশিক্ষন প্রোগ্রাম 'বিল্ডিং ব্রিজেস থ্রু লিডারশিপ ট্রেনিং' এর মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে । বিল্ডিং ব্রিজেস থ্রু লিডারশিপ ট্রেনিং' এর পাশাপাশি বিওয়াইএলসি বিভিন্ন প্রোগ্রাম এবং সম্মেলন আয়োজন করে থাকে। বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশীপ সেন্টার এর ধারণাটি মূলত' জানুয়ারি ২০০৮' হাভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের কেনেডি ইস্কুল অফ গর্ভমেন্ট' থেকে গঠিত করা। 'বিল্ডিং ব্রিজেস থ্রু লিডারশিপ ট্রেনিং' প্রোগ্রামটি ইজাজ আহমেদ এবং সাম্মি এস কুদ্দুস যৌথ ভাবে পরিকল্পনা করেন। এজাজ আহমেদ এবং কুদ্দুস ম্যাসাচুসেট্‌স ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি(এমআইটি) এর আর্থিক এবং কারিগরি সহায়তাই ২০০৮ সালে প্রথম 'বিল্ডিং ব্রিজেস থ্রু লিডারশিপ ট্রেনিং' চট্টগ্রামে শুরু করেন। ওয়েবসাইট: www.bylc.org উইকিপিডিয়া লিংক: https://bn.m.wikipedia.org/wiki/বাংলাদেশ_ইয়ুথ_লিডারশিপ_সেন্টার রবি ১০ মিনিটস স্কুল: ১০ মিনিট স্কুল হচ্ছে একটি শিক্ষামূলক সংগঠন যা শিক্ষা উদ্যোক্তা আয়মান সাদিক প্রতিষ্ঠা করেন। একে সহায়তা করেছিল বাংলাদেশী মোবাইল অপারেটর রবি। লক্ষ্য ছিল এমন একটি স্থান তৈরী করা; যেখান থেকে মানুষ চাইলে শিক্ষিত হয়ে উঠবে। এই প্রতিষ্ঠান ইউটিউব এবং ফেসবুকেসংক্ষিপ্ত লেকচারসমৃদ্ধ ভিডিও তৈরী করে থাকে।এই প্রতিষ্ঠান অনুশীলনের জন্য বিভিন্ন ভিডিও নির্মাণ করে। মুলত এই ওয়েবসাইট বা সংগঠনটি বাংলায় ভিডিওচিত্র নির্মাণ করে থাকে। ওয়েবসাইট: www.robi10minuteschool.com উইকিপিডিয়া লিংক: https://bn.m.wikipedia.org/wiki/১০_মিনিট_স্কুল এলোহা বাংলাদেশ: ALOHA Bangladesh বা এলোহা বাংলাদেশ হলো একটি গণিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যেখানে প্রাচীনকালের অ্যাবাকাস দিয়ে গণিত শেখানো হয়।শেখানো হয়। ALOHA-র পূর্ণ অর্থ হলো Arithmetic Learning On Higher Abacus. এখানে তিনভাবে গণিত শেখানো হয়, ফিঙ্গার বা আঙুল পদ্ধতি, অ্যাবাকাস পদ্ধতি এবং মেন্টাল বা মনে মনে অংক করার পদ্ধতি। এটি বৈজ্ঞানিকভাবেও স্বীকৃত। তাছাড়া এতে মস্তিষ্কেরও উন্নতি হয়। ওয়েবসাইট:www.alohabangladesh.com খান একাডেমী: খান একাডেমি একটি মার্কিন অলাভজনক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ২০০৬ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত সালমান খান এটি প্রতিষ্ঠা করেন। "সকলের জন্য, সব জায়গায় বিনামূল্যে বিশ্বমানের শিক্ষাদান" স্লোগানে এই প্রতিষ্ঠানটি শিক্ষা নিয়ে কাজ করছে। একাডেমির নিজের ওয়েবসাইট ও ইউটিউবের মাধ্যমে ৩১০০ বেশি বিভিন্ন বিষয়ের উপর ভিডিও টিউটোরিয়াল নির্মাণ করে খান একাডেমি।এর সবকিছু বিশ্বজুড়ে যে কেউর জন্য মুক্তভাবে উপলব্ধ। ওয়েবসাইটের প্রধান ভাষা হল ইংরেজি, কিন্তু এর বিষয়বস্তু বাংলাসহ অন্যান্য ভাষায় পাওয়া যায়। ২ মার্চ ২০১৬ তারিখে ঢাকায় খান একাডেমির বাংলা সংস্করণ উদ্বোধন করা হয়।ওয়েবসাইট এবং এর বিষয়বস্তু প্রধানত ইংরেজিতে সরবরাহ করা হয়, তবে স্প্যানিশ, পর্তুগিজ, ইতালীয়, রাশিয়ান, তুর্কি, ফ্রেঞ্চ, বাংলা এবং হিন্দি সহ অন্যান্য ভাষায়ও পাওয়া যায়। ওয়েবসাইট: bn.khanacademy.org উইকিপিডিয়া লিংক: https://bn.m.wikipedia.org/wiki/খান_একাডেমি বাংলাদেশ প্রজন্ম সংসদ: বাংলাদেশ প্রজন্ম সংসদ একটি প্লাটফর্ম যেখানে বাংলাদেশ প্রজন্ম সংসদ কতৃপক্ষ শিশুদের নীতি নির্ধারন নিয়ে কাজ করে। বাংলাদেশের ৩০০টি সংসদীয় আসন থেকে শিশুদের (যাদের বয়স ১৩-১৮ এর মধ্যে) সরাসরি অংশগ্রহণে এই সংসদ গঠিত হয়েছে ।মনে কর তোমার বাসা যে এলাকায় সেখানকার নির্বাচনি এলাকার নাম পার্বত্য খাগড়াছড়ি। তাহলে তুমি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে সেই সংসদীয় আসনের ফেসবুক গ্রুপে তুমি যোগদান করতে পারো। এভাবে যোগদান করা যাবে। যাদের ফেসবুক নেই তারা তাদের মা-বাবা, বড় ভাই-বোন, বন্ধু-বান্ধব কিংবা কোনো আত্মীয়-স্বজনের ফেসবুক থেকে যোগদান করতে পারবে। ধরে নেই একটি গ্রুপ গাইবান্ধা ১। এই গ্রুপে  নির্বাচনী আসনের সব শিশুদের এক করে এবং ২০ জন মেম্বার হওয়ার পর থেকে সেখানে শিশুদের নিয়ে সিটিজেন জার্নালিজম সহ নানা ধরনের কর্মকান্ড পরিচালনা করা হবে এবং সেখান থেকে প্রতিবার ১ জন করে, ৪ জন শিশু আগামী ২ বছরে ঢাকায় আসবে বাংলাদেশ প্রজন্ম সংসদের কেন্দ্রীয় অধিবেশনে। এখানে গ্রুপে সিটিজেন জার্নালিজম সহ নানা ধরনের কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে, প্রত্যেক গ্রুপ সদস্যের অংশগ্রহনের ভিত্তিতে সবাইকে মুল্যায়ন করা হবে, যারা মুল্যায়ন বেশী ভালো হবে - সে আসবে ঢাকাতে। ফেসবুক লিংক: https://www.facebook.com/pg/BangladeshGenerationParliament/groups/






মন্তব্য ( ০ )

মন্তব্য করতে হলে আগে লগ ইন করুন


সর্বশেষ সংবাদ

আরও

পাঁচটি সহ-শিক্ষা এবং শিক্ষামূলক কার্যক্রমের লোগো

পাঁচটি সহ-শিক্ষা এবং শিক্ষামূলক কার্যক্রম

অপূর্ব দীপ্ত ভৌমিক, হাজী মুহাম্মদ মহসিন সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, CHATTOGRAM,

২৬ মার্চ, ২০১৯

২১ শতাব্দীর এই যুগে একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি সহ-শিক্ষা এবং শিক্ষামূলক কার্যক্রমকেও কিন্তু ছোটো করে দেখবার উপায় নেই। তাই সকল শিক্ষার্থীর সুবিদার্থে আমি পাঁচটি সহ-শিক্ষা এবং শিক্ষামূলক কার্যক্রম নিয়ে একটি পোস্ট দিলাম।কারো কোনো প্রশ্ন থাকলে "মন্তব্য"-এ লিখতে পারো। আমি যথাসম্মত উত্তর দেবো। বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশিপ সেন্টার(বিওয়াইএলসি): বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশীপ সেন্টার বাংলাদেশের প্রথম নেতৃত্ব শিক্ষাদানকারী প্রতিষ্ঠান। এটি স্থাপিত হয় ২০০৯ সালে।বিওয়াইএলসি চারমাস ব্যাপী নেতৃত্ব প্রশিক্ষন প্রোগ্রাম 'বিল্ডিং ব্রিজেস থ্রু লিডারশিপ ট্রেনিং' এর মাধ্যমে যাত্রা শুরু করে । বিল্ডিং ব্রিজেস থ্রু লিডারশিপ ট্রেনিং' এর পাশাপাশি বিওয়াইএলসি বিভিন্ন প্রোগ্রাম এবং সম্মেলন আয়োজন করে থাকে। বাংলাদেশ ইয়ুথ লিডারশীপ সেন্টার এর ধারণাটি মূলত' জানুয়ারি ২০০৮' হাভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের কেনেডি ইস্কুল অফ গর্ভমেন্ট' থেকে গঠিত করা। 'বিল্ডিং ব্রিজেস থ্রু লিডারশিপ ট্রেনিং' প্রোগ্রামটি ইজাজ আহমেদ এবং সাম্মি এস কুদ্দুস যৌথ ভাবে পরিকল্পনা করেন। এজাজ আহমেদ এবং কুদ্দুস ম্যাসাচুসেট্‌স ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি(এমআইটি) এর আর্থিক এবং কারিগরি সহায়তাই ২০০৮ সালে প্রথম 'বিল্ডিং ব্রিজেস থ্রু লিডারশিপ ট্রেনিং' চট্টগ্রামে শুরু করেন। ওয়েবসাইট: www.bylc.org উইকিপিডিয়া লিংক: https://bn.m.wikipedia.org/wiki/বাংলাদেশ_ইয়ুথ_লিডারশিপ_সেন্টার রবি ১০ মিনিটস স্কুল: ১০ মিনিট স্কুল হচ্ছে একটি শিক্ষামূলক সংগঠন যা শিক্ষা উদ্যোক্তা আয়মান সাদিক প্রতিষ্ঠা করেন। একে সহায়তা করেছিল বাংলাদেশী মোবাইল অপারেটর রবি। লক্ষ্য ছিল এমন একটি স্থান তৈরী করা; যেখান থেকে মানুষ চাইলে শিক্ষিত হয়ে উঠবে। এই প্রতিষ্ঠান ইউটিউব এবং ফেসবুকেসংক্ষিপ্ত লেকচারসমৃদ্ধ ভিডিও তৈরী করে থাকে।এই প্রতিষ্ঠান অনুশীলনের জন্য বিভিন্ন ভিডিও নির্মাণ করে। মুলত এই ওয়েবসাইট বা সংগঠনটি বাংলায় ভিডিওচিত্র নির্মাণ করে থাকে। ওয়েবসাইট: www.robi10minuteschool.com উইকিপিডিয়া লিংক: https://bn.m.wikipedia.org/wiki/১০_মিনিট_স্কুল এলোহা বাংলাদেশ: ALOHA Bangladesh বা এলোহা বাংলাদেশ হলো একটি গণিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যেখানে প্রাচীনকালের অ্যাবাকাস দিয়ে গণিত শেখানো হয়।শেখানো হয়। ALOHA-র পূর্ণ অর্থ হলো Arithmetic Learning On Higher Abacus. এখানে তিনভাবে গণিত শেখানো হয়, ফিঙ্গার বা আঙুল পদ্ধতি, অ্যাবাকাস পদ্ধতি এবং মেন্টাল বা মনে মনে অংক করার পদ্ধতি। এটি বৈজ্ঞানিকভাবেও স্বীকৃত। তাছাড়া এতে মস্তিষ্কেরও উন্নতি হয়। ওয়েবসাইট:www.alohabangladesh.com খান একাডেমী: খান একাডেমি একটি মার্কিন অলাভজনক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ২০০৬ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত সালমান খান এটি প্রতিষ্ঠা করেন। "সকলের জন্য, সব জায়গায় বিনামূল্যে বিশ্বমানের শিক্ষাদান" স্লোগানে এই প্রতিষ্ঠানটি শিক্ষা নিয়ে কাজ করছে। একাডেমির নিজের ওয়েবসাইট ও ইউটিউবের মাধ্যমে ৩১০০ বেশি বিভিন্ন বিষয়ের উপর ভিডিও টিউটোরিয়াল নির্মাণ করে খান একাডেমি।এর সবকিছু বিশ্বজুড়ে যে কেউর জন্য মুক্তভাবে উপলব্ধ। ওয়েবসাইটের প্রধান ভাষা হল ইংরেজি, কিন্তু এর বিষয়বস্তু বাংলাসহ অন্যান্য ভাষায় পাওয়া যায়। ২ মার্চ ২০১৬ তারিখে ঢাকায় খান একাডেমির বাংলা সংস্করণ উদ্বোধন করা হয়।ওয়েবসাইট এবং এর বিষয়বস্তু প্রধানত ইংরেজিতে সরবরাহ করা হয়, তবে স্প্যানিশ, পর্তুগিজ, ইতালীয়, রাশিয়ান, তুর্কি, ফ্রেঞ্চ, বাংলা এবং হিন্দি সহ অন্যান্য ভাষায়ও পাওয়া যায়। ওয়েবসাইট: bn.khanacademy.org উইকিপিডিয়া লিংক: https://bn.m.wikipedia.org/wiki/খান_একাডেমি বাংলাদেশ প্রজন্ম সংসদ: বাংলাদেশ প্রজন্ম সংসদ একটি প্লাটফর্ম যেখানে বাংলাদেশ প্রজন্ম সংসদ কতৃপক্ষ শিশুদের নীতি নির্ধারন নিয়ে কাজ করে। বাংলাদেশের ৩০০টি সংসদীয় আসন থেকে শিশুদের (যাদের বয়স ১৩-১৮ এর মধ্যে) সরাসরি অংশগ্রহণে এই সংসদ গঠিত হয়েছে ।মনে কর তোমার বাসা যে এলাকায় সেখানকার নির্বাচনি এলাকার নাম পার্বত্য খাগড়াছড়ি। তাহলে তুমি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে সেই সংসদীয় আসনের ফেসবুক গ্রুপে তুমি যোগদান করতে পারো। এভাবে যোগদান করা যাবে। যাদের ফেসবুক নেই তারা তাদের মা-বাবা, বড় ভাই-বোন, বন্ধু-বান্ধব কিংবা কোনো আত্মীয়-স্বজনের ফেসবুক থেকে যোগদান করতে পারবে। ধরে নেই একটি গ্রুপ গাইবান্ধা ১। এই গ্রুপে  নির্বাচনী আসনের সব শিশুদের এক করে এবং ২০ জন মেম্বার হওয়ার পর থেকে সেখানে শিশুদের নিয়ে সিটিজেন জার্নালিজম সহ নানা ধরনের কর্মকান্ড পরিচালনা করা হবে এবং সেখান থেকে প্রতিবার ১ জন করে, ৪ জন শিশু আগামী ২ বছরে ঢাকায় আসবে বাংলাদেশ প্রজন্ম সংসদের কেন্দ্রীয় অধিবেশনে। এখানে গ্রুপে সিটিজেন জার্নালিজম সহ নানা ধরনের কর্মকান্ড পরিচালিত হচ্ছে, প্রত্যেক গ্রুপ সদস্যের অংশগ্রহনের ভিত্তিতে সবাইকে মুল্যায়ন করা হবে, যারা মুল্যায়ন বেশী ভালো হবে - সে আসবে ঢাকাতে। ফেসবুক লিংক: https://www.facebook.com/pg/BangladeshGenerationParliament/groups/

মন্তব্য ( ০ )

মন্তব্য করতে হলে আগে লগ ইন করুন